মার্চ 16, 2019

-প্রথমে গত সপ্তাহের ঘটনাবলী পর্যালোচনা করা যাকঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। সারা সপ্তাহ ধরে, ইউরোপীয়ান মুদ্রা যে কেবলমাত্র Euro Stoxx-এ ইসিবি-র প্রধান মারিও দ্রাঘির কৌশলপূর্ণ অলঙ্কারপূর্ণ বাক্যের দ্বারা 600 সূচক বৃদ্ধি পেয়েছে তাই নয়, কিন্তু সবার উপরে, ইউ-কে-র ইইউ থেকে প্রস্থানের (এবং সম্ভবত প্রস্থান নাও হতে পারে) শর্তাবলীর বিষয়ে এক আশাপ্রদ মনোভাবের কারণেও ঘটেছে। এর ফলে, এই মুদ্রাজুড়ি 1.1215-1.1570-এর মাঝারি-মেয়াদের মধ্যে নিজেদের অবস্থান সুসংহত করেছে, যার মধ্যে গত অক্টোবর 2018 সালের শেষ থেকে এগিয়ে চলেছে, এবং এমনকি এর কেন্দ্রীয় রেখার প্রতিও ধাবিত হয়ে, বুধবার, 13ই মার্চে 1.1338-এর উচ্চতায় উঠেছে।
    বৃহস্পতিবার 14ই মার্চ ইউরোপীয়ান মুদ্রার জন্য শুধুই খারাপ দিন ছিল। এই দিনে জানা গেল যে আমেরিকার ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং চীনের জি জিনপিয়াংয়ের নেতৃত্বের মধ্যে মার্চে কোন বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে না, এবং এটি কেবলমাত্র এপ্রিলেই হতে পারে। এই খবরে ডলারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ বাড়িয়ে দিয়েছিল, যদিও খুব বেশী নয়, এবং এই মুদ্রাজুড়িকে শুক্রবারে 1.1345-এ দেখা যেতে পারে। লেনদেনের ট্রেডিংয়ের কথা বলতে গেলে, এক শক্তিশালী ইউনিভার্সিটি অফ্ মিচিগান কনজিউমার সেন্টিমেন্ট সূচকের কারণে, এই মুদ্রাজুড়ি 20 পয়েন্টে নীচে নেমে গিয়ে 1.1325-এর স্তরে পৌঁছিয়েছিল;  
  • GBP/USD  মুদ্রাজুড়ি। বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা ব্রিটিশ মুদ্রার শক্তিশালী হবার আশা করছেন এবং প্রথমে মার্চে ফেব্রুয়ারীর উচ্চতায় (1.3350) এবং, তারপরে আরো 200 পয়েন্ট উঁচুতে। এই পূর্বাভাস সত্য হতে শুরু করেছেঃ গত সপ্তাহের বৃদ্ধি 1.3380-এর উচ্চতায় স্থির হয়েছিল, এবং এই মুদ্রাজুড়ি পাঁচ-দিনের ম্যারাথন দৌড় 1.3300-এর এক খুব শক্তিশালী প্রতিরোধক স্তরের অঞ্চলে সমাপ্ত করেছিল।
    দোদুল্যমান সূচকের সাপ্তাহিক বিস্তার 420 পয়েন্টে পৌঁছিয়েছিল। এবং যদি আপনি এই মুদ্রাজুড়ির চার্টের দিকে তাকান, এটিকে একপ্রকারের একটি কার্ডিওগ্রামের মত দেখাচ্ছে, যেগুলির উল্লম্ফন এবং পতন লণ্ডনে ঐ সময়ে ঘটছিল তার সাথে সম্পর্কিত। গ্রেট ব্রিটেনের পার্লামেন্ট বারংবার গণভোটের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছিল এবং 30শে জুনের ব্রেক্সিটের অন্তিমসময় পিছিয়ে দেবার পক্ষে সুর তুলেছে। আর ঠিক একই সময়ে, “কঠোর”  প্রস্থানের দৃশ্যকল্প,ইউ-এর সাথে কোন চুক্তি করা ছাড়াই, প্রত্যাখ্যাত হয়েছিল। এখন, প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মেকে ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের কাছে ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেবার জন্য নতজানু হতে হবে। কিন্তু ইউ-এর এতে প্রতিক্রিয়া অন্য ব্যাপার, যেহেতু এই ইউনিয়নের সমস্ত 27টি দেশই এতে তাদের সম্মতি দেবে। এবং নতুন চুক্তিতে কি ঘটবে তাও অস্পষ্ট রয়েছে। যদি সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলি দুই বছরের বেশী সময়েও সহমত না হতে পারে,পরবর্তী তিন মাসে তারা কি করবে?   
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। যেমন বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা পূর্বাভাস করছেন, এই মুদ্রাজুড়ি উর্ধমুখী চ্যানেলের মধ্যেই অবস্থান করেছিল, যা জানুয়ারী 2019-এর একদম প্রথমেই শুরু হয়েছিল, এবং প্রায় 112.00-এর সীমায় পৌঁছিয়েছিল। এটি এই উচ্চতার মাত্র 10 পয়েন্ট নীচে ছিল, কিন্তু ব্যাংক অফ্ জাপানের প্রধান, হারুহিকো কুরোদা তার দেশের জাতীয় মুদ্রার পতন আঁটকাতে পেরেছিলেন।
    জাপানের অর্থনৈতিক কার্যক্ষমতাকে সেরা বলে মনে হচ্ছে না। এর বাণিজ্য ঘাটতি 6 বছরে সব থেকে বেশী, এবং চীনে রপ্তানির হ্রাস 2 বছরের মধ্যে সবথেকে বেশী। এটি অংশত হল চীনের নতুন বছর উদযাপনের কারণে, কিন্তু আসল কথা হল যে জাপান বিশ্ব আর্থিক বৃদ্ধির মন্দীভূত অবস্থায় দারুণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 2019 সালের জন্য বিক্রয় করের পরিকল্পিত বৃদ্ধিও কোন আশা বৃদ্ধি করতে  পারছে না।
    তবে, কুরোদোয়ার মতে, বিষয়গুলি ততটা খারাপ নয়। তিনি 15ই মার্চের এক সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন, “”বর্তমানে, আমাদের মূল দৃশ্যকল্প এই বছরের দ্বিতীয়ার্ধে চীনের অর্থনীতি এবং ইউরোজোনের পুনরুদ্ধার অনুমান করেছে, এবং এই বছরে জাপানী অর্থনীতি নিজেই মাঝারি বিস্তারে রয়েছে, এবং 2% মুদ্রাস্ফীতির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের প্রাবাল্য অপরিবর্তিত আছে।”
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। একটি বিখ্যাত দার্শনিক ধাঁধা আছে যাকে বুরিদানের গাধা বলে। এটি হল প্রাচীন গ্রীক দার্শনিক অ্যারিস্টটলের একটি প্রবাদবাক্য, এর অর্থ পছন্দ বাছাইয়ের সমস্যার উপরে রয়েছে। একটি গাধা ক্ষিধেয় মারা যাচ্ছিল, এবং সেটি দুটি একই রকমের খড়ের গাদার মধ্যে দাড়িয়েছিল। কোন খড়ের গাদাটিকে বাছতে হবে? প্রবাদবাক্য অনুসারে, গাধাটি তা স্থির করতে পারে নি এবং, পরিশেষে, ক্ষিধেতেই মারা গেল।
    ক্রিপ্টোমুদ্রার ক্ষেত্রে কোন গাধা নেই, সেখানে ষাঁড় (তেজিবাজার) এবং ভাল্লুক (মন্দাবাজার) আছে, কিন্তু এমনকি তারাও একই রেখায় অনেক সপ্তাহ ধরে ঘুরে বেড়াচ্ছে, যথেষ্ট পরিমাণে লাভ করার জন্য কোন দিকে যেতে হবে সেটি না জেনে।
    উপরেরটি হল একটি রূপক। কিন্তু সত্যটা হল যে Bitcoin-এর দর 3,900$-এর আশপাশে সুসংহত হয়ে রয়েছে। পরপর তিন সপ্তাহ হল সর্বোচ্চ অনিশ্চয়তা 200-300 পয়েন্টের বেশী অতিক্রম করছে না। আশার কথা যে কিছু বিশেষজ্ঞরা এটিকে সংহতির দশা বলছেন এবং এটি ঝড়ের আগের নিস্তব্ধতা। কিন্তু ঝড় হিসাবে কাকে গণ্য করা হবে?
    যেমন পূর্বাভাস করা হয়েছিল, BTC/USD মুদ্রাজুড়ি গত সপ্তাহে 3,850-4,050$-এর সংকীর্ণ প্রান্তে সরে গিয়েছে। Ethereum (ETH/USD) এবং Litecoin (LTC/USD) একইরকম পরিমিত অনিশ্চয়তা প্রদর্শন করেছে। এবং এটি কেবলমাত্র Ripple (XRP/USD) যা অনেক বাধা দেখিয়েছিল, যদিও পরে সবকিছুই শান্ত হয়ে গিয়েছিল এবং স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছিল।

 

-আসন্ন সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে, অনেক বিশ্লেষকদের মতামতের সাথে সাথে প্রাযুক্তিক ও রৈখিক বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে কৃত পূর্বাভাসগুলিকে সংক্ষিপ্ত করে আমরা নিম্মলিখিত বক্তব্য রাখছিঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। একদিকে, ইউএস জিডিপি-র ধীরগতি এবং ইউরোজোনের আর্থিক পুনরুদ্ধারের আশা ইউরোপীয়ান মুদ্রার পক্ষেই গিয়েছে। অপরদিকে ইউএ-র বিরুদ্ধে এক দফা নতুন অর্থনৈতিক যুদ্ধ ইউরোর ভবিষ্যতের বিষয়ে সতর্কবাণী জারি করেছে। এর ফলে, বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা (65%) বিশ্বাস করেন যে এই মুদ্রাজুড়ি 1.1215-1.1570-এর পরিসরে ভারসাম্য রাখা বজায় রাখবে। আর ঠিক একই সময়ে, ব্রেক্সিটের বিষয়ে ইতিবাচক তথ্য এই চ্যানেলের উর্ধ্বতর সীমার অভীষ্ট অগ্রগতিতে অবদান রাখবে। নিকটতম শক্তিশালী প্রতিরোধক স্তর হল 1.1400 -এর অঞ্চল, পরবর্তীটি হল 100 পয়েন্ট উঁচুতে।
    বুধবার, 20শে মার্চে, ইউএস ফেডারেল রিজার্ভের সুদের হারের সিদ্ধান্ত এবং সংস্থার প্রধান, জেরোম পাওয়ালের গতানুগতিক সাংবাদিক বৈঠকের জন্য আমরা অপেক্ষারত থাকব। প্রথম বিষয়টিতে খুব সম্ভবত কোন আশ্চর্যজনক কিছু থাকবে না, এবং এখনও পর্যন্ত হার অপরিবর্তিত থাকবে। বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা (60%)  বিশ্বাস করেন যে এর পরবর্তী বৃদ্ধি কেবলমাত্র সেপ্টেম্বরে অথবা এমনকি আরো পরে হবে। কিন্তু পাওয়েল তার বক্তব্যে এইসব পূর্বাভাসের মধ্যে সামঞ্জস্য বিধান করতে পারেন, এবং তারপরে এই মুদ্রাজুড়ি নীচের দিকে ঘুরে যেতে পারে, 1.1215-এর চ্যানেলের নীচের সীমা ভাঙ্গতে পারে, এবং 7ই মার্চের নিম্ন অবস্থান 1.1175-এ ফিরে আসতে পারে। প্রায় 15% বিশেষজ্ঞরা এই মুদ্রাজুড়ির মার্চ-এপ্রিলে 1.1000-1.1100-এর অঞ্চলে পতনের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেন নি;

  • GBP/USD  মুদ্রাজুড়ি। মঙ্গলবার, 19শে মার্চ এবং বুধবার, 20শে মার্চে ইউকে থেকে বৃহৎ অর্থনৈতিক ডেটা, এবং বৃহস্পতিবার, 21শে মার্চে, সুদের হারের উপর ব্যাংক অফ্ ইংল্যাণ্ডের সিদ্ধান্ত প্রকাশিত হবে। কিন্তু এইসব ঘটনাবলী ব্রেক্সিট ধারার পরবর্তী ঘটনার তুলনায় ম্নান হয়ে যাচ্ছেঃ 20শে মার্চ, ইউ-র সাথে চুক্তির বিষয়ে পার্লামেন্টে আরেকবার ভোট হতে যাচ্ছে, যার কারণে এই মুদ্রাজুড়ির অনিশ্চয়তা নিশ্চিতভাবে বৃদ্ধি পাবে।
    এই মুদ্রাজুড়ি গত সপ্তাহে 1.3300-এর অঞ্চলে এক শক্তিশালী প্রতিরোধক স্তরে শেষ করেছে, যা এই জুড়ি গত জুন থেকেই অতিক্রম করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। এই অঞ্চলটি সহায়ক স্তর হিসাবে পরিগণিত হবে কি না তা পার্লামেন্টের এই বৈঠক শেষের নোটের উপর, এবং পরের দিন ব্যাংক অফ্ ইংল্যাণ্ড থেকে কি ইঙ্গিত আসবে তার উপর নির্ভর করবে। 70% বিশ্লেষক, প্রবণতা সূচক এবং D1-তে দোদুল্যমান সূচকের সহায়তায় আশাবাদী রয়েছেন, এই বিবেচনায় যে এই মুদ্রাজুড়ি 1.3470-এর স্তরে উঠতে সমর্থ হবে। পরবর্তী লক্ষ্যমাত্রা হবে 1.3600।
    30% বিশেষজ্ঞ দ্বারা এক বিকল্প দৃষ্টিকোণ সমর্থিত হয়েছে। তাদের মতে, পাউণ্ড ইতিমধ্যে তার সম্ভাবনা নিঃশ্বেষ করে ফেলেছে, এবং এই মুদ্রাজুড়ি 1.2960-1.3300-এর চ্যানেলে তির্যক গমনাগমনের মুখোমুখী হয়েছে। সহায়ক/প্রতিরোধক স্তরগুলি হল 1.3080 এবং 1.3200;  
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। এই মুদ্রাজুড়ির প্রাথমিক পূর্বাভাস একই রয়েছেঃ 75% বিশ্লেষক বিশ্বাস করেন যে এই উর্ধ্বমুখী প্রবণতা বজায় থাকবে, এই মুদ্রাজুড়ি 112.00-এ এই সীমা অতিক্রম করবে, যার পরে এটি আশা করা যায় যে এই জুড়ি 112.25-113.70-এর পার্শ্ববর্তী চ্যানেলে এগোতে থাকবে, যেমন নাকি এই জুড়ি গত নভেম্বর-ডিসেম্বরে ছিল।
    D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ দ্বারা যেই পূর্বাভাস টানা হয়েছে সেটি অনেক বেশী সংযত হয়েছেঃ 111.35-112.70-এর মধ্যেই তির্যক গমনাগমন।
    নির্দেশকদের কথা বলতে গেলে, তাদের 70% H4  এবং D1 উভয়তেই সবুজ রং দেখাচ্ছে, 20% ধূসর, অর্থাৎ নিরপেক্ষ, এবং মাত্র 10% লাল দেখাচ্ছে।
    প্রবণতা বিপরীতে, সহায়ক স্তর হবে 109.10, 110.25 এবং 110.75;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। যদি আপনি Bitcoin চার্টের দিকে তাকান, আরেকটি বিপর্যয়ের বিষয়ে আপনার একটি খারাপ অনুভূতি হবে। 2018 সালের মধ্য-জুলাই থেকে মধ্য-নভেম্বর অংশের দিকে তাকানঃ অনিশ্চয়তার ধীরলয়ে হ্রাস, সংহতি, প্রশান্তি এবং, এর ফলে...দরের প্রায় 45% পতন হয়েছে, - 6,500$ থেকে 3,660$-এ নেমেছে।
    আর এখন মধ্য-নভেম্বর থেকে আজ অবধি সময়কালের প্রতি তাকান। আপনি সম্পূর্ণরূপে একই ছবি দেখতে পারবেনঃ অনিশ্চয়তার ধীরলয়ে হ্রাস, সংহতি, প্রশান্তি এবং, এর ফলে... কিন্তু ফলাফল কি হবে, তা এখনো অজ্ঞাত রয়েছে। ক্রিপ্টোবাজার তার অনঅনুমানযোগ্যতার জন্য প্রসিদ্ধ। যদিও 70% বিশেষজ্ঞরা বসন্তে ক্রিপ্টোজুড়ির 3,000$-এর নীচে পতনের পক্ষে সমর্থন দেবেন।
    অদূর ভবিষ্যতে পূর্বাভাসের কথা বলতে গেলে, এটি অপরিবর্তিত থাকবেঃ খুব সম্ভবত, এই ক্রিপ্টোজুড়ির 3,900$-এর দিগন্ত ধরে এগোনো বজায় থাকবে, এর দর যেকোন এক অভিমুখে 200-300 পয়েন্টের ওঠানামা সহ। এটি অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে ব্রোকার সংস্থা NordFX দ্বারা প্রদত্ত ট্রেডিংয়ের অবস্থা ক্রিপ্টোমুদ্রার খুব সামান্যতম ওঠানামাতেও দিনের দিনে লাভ সম্ভব করে তুলতে পারে। MT4 এবং MT5 প্ল্যাটফর্মে ট্রেডিংয়ের কাজ হয় যা ট্রেডারদের কাছে পরিচিত, কমিশন নূন্যতম, এবং MT5-এর জন্য মাত্র 100$ অথবা MT4-এর জন্য মাত্র 300$ পরিমাণ অর্থ 1টি Bitcoin (1টি লট) ক্রয় বা বিক্রয় পরিস্থিতির জন্য যথেষ্ট।   

 

-রোমান বাটকো, NordFX


-বিজ্ঞপ্তিঃ এই লেখনীগুলিকে আর্থিক বাজারে লেনদেন করার জন্য বিনিয়োগ বা নির্দেশিকার সুপারিশ হিসাবে গণ্য করা উচিত হবে নাঃ এগুলি শুধুমাত্র তথ্যমূলক উদ্দেশ্যে করা হয়েছে। আর্থিক বাজারে ট্রেডিং ঝুঁকিপূ্র্ণ এবং এতে গচ্ছিত অর্থের সম্পূর্ণ ক্ষতি হতে পারে।  


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)