ফেব্রুয়ারী 23, 2019

-প্রথমে গত সপ্তাহের ঘটনাবলী পর্যালোচনা করা যাকঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। প্রায় সারা সপ্তাহ জুড়ে, এই মুদ্রাজুড়ি সেখানেই ছিল যেখানে এক সপ্তাহ, এক মাস, এবং দুই বা তিন মাস আগে বারংবার চলে যাচ্ছিল। এরকম বিরল কিছু স্বল্প-মেয়াদী বাধা পার করা ছাড়া, এই মুদ্রাজুড়ি 1.1300-1.1500-এর মাঝারি-মেয়াদীর সংকীর্ণ প্রান্তকে ভাঙ্গতে সমর্থ হয় নি। যদি আমরা এই চ্যানেলকে চরম বিন্দুতে প্রসারিত করি, এটি সামান্য বেশী বিস্তৃত হবেঃ 1.1215-1.1570।
    এটি ব্রেক্সিট এবং ইউএস-চীনের উভয় আলোচনার স্বচ্ছতার অভাবের কারণে ঘটেছিল। এর সাথে এটিও যোগ করা যায়, একদিকে সুদের হার বৃদ্ধি হ্রাস করার প্রতি ফেড-এর মনোভাব, এবং অন্যদিকে, জার্মানী এবং ইউরোজোনের অর্থনীতির দুর্বল পরিসংখ্যান। যেই মুহূর্তে ডলারের বৃদ্ধি হওয়া শুরু করল, এক সংকট-বিরোধী LTRO (দীর্ঘমেয়াদী পুর্নবার আর্থিক সহায়তার কাজ) শুরু করার সম্ভাবনার বিষয়ে ইসিবি থেকে গুজব অথবা মর্যাদাপূর্ণ বিশ্লেষকদের দ্বারা প্রবন্ধে দেওয়া বিবৃতি যে ইউএস মুদ্রার অধিক ক্রয় হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে, এবং এই প্রবণতা আবারও ইউরোর পক্ষে যাচ্ছে। এর ফলে, ডলার গত সপ্তাহে অপেক্ষাকৃত নীচের সীমানা ভাঙ্গতে সমর্থ হয় নি এবং লেনদেনের সপ্তাহটি 1.1335-এ শেষ করেছিল;
  • GBP/USD  মুদ্রাজুড়ি। বিশৃঙ্খলাপূর্ণ ব্রেক্সিটের সম্ভাবনার বিষয়ে অবিরত কথাবার্তা হওয়া সত্ত্বেও, মঙ্গলবার, 19শে ফেব্রুয়ারীতে পাউণ্ড এক আকর্ষণীয় বৃদ্ধি দেখিয়েছিল। এমনকি ইউকে-র ক্রেডিট মূল্যায়নের অবনমনের সম্ভাবনার বিষয়ে ফিচ-এর (Fitch) সতর্কবাণী থাকা সত্ত্বেও তা তেজিবাজারকে ভয় দেখাতে পারে নি। 1.3000-এর মনস্তাত্বিক স্তরের উপরে ওঠার পরে, পাউণ্ডের দর আরো 100 পয়েন্ট উপরে উঠেছিল, যার পরে আবার ঘুরে দাড়িয়েছিল, এবং এই মুদ্রাজুড়ি 1.3000 -এর দিগন্তে এগিয়ে যাওয়া বজায় রেখেছিল, আর শুক্রবারের মধ্যরাত্রিতে 1.3050-এ এসে থেমেছিল;
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। সারা সপ্তাহ ধরে বিশেষজ্ঞরা আলোচনা করছিলেন কিভাবে SP500 সূচকের অবনমন, যেই সূচকের সাথে এই মুদ্রাজুড়ি সম্পর্কিত রয়েছে, তা জাপানী মুদ্রাকে প্রভাবিত করতে পারে। কিভাবে ইউএস-চীনের পরবর্তী স্তরের কথাবার্তার সমাপ্তি এটিকে প্রভাবিত করবে? এই মুদ্রাজুড়ি কি 10-বছরের ইউএস এবং জাপানী সরকারী বণ্ডের আয় বৃদ্ধি থেকে কি কোন সহায়তা পাবে?
    USD/JPY মুদ্রাজুড়ির চার্টের দিকে তাকিয়ে, যেকেউ দেখতে পারেন কত ধীরগতিতে এই শেয়ারবাজার এই সব কারণের পরিবর্তনের প্রতি প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছিল। তেজিবাজারের মনোভাবের কিছুটা প্রাধান্যের সাহায্যে এই মুদ্রাজুড়ি 110.45-110.95-এর চরম সংকীর্ণ পার্শ্ববর্তী চ্যানেলের মধ্যে ছিল, আর সপ্তাহের শেষে 110.66-এর স্তরের কেন্দ্রীয় অঞ্চলে ফিরে এসেছিল;
  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। বিগত 7 দিন ধরে ক্রিপ্টোবাজার বেশ তেজী ছিল এই খবরের জন্য কি প্রথম ইউএস ব্যাংক, জেপিমরগ্যান, সাফল্যের সাথে তার নিজের ডিজিটাল মুদ্রা জেপিএম মুদ্রা (JPM Coin) সৃষ্টি করেছিল এবং পরীক্ষা করেছিল, যা এটি বৃহৎ আর্থিক সংস্থার সাথে পারস্পরিক লেনদেনে ব্যবহারের জন্য পরিকল্পনা করছে। এবং এই ঘটনা থাকা সত্ত্বেও যে প্রকৃতপক্ষে JPM Coin হল একটি উল্লেখ্য ক্রিপ্টোমুদ্রার প্রতিদ্বন্দী, Bitcoin-এর দরের বৃদ্ধি হয়েছিল। DataLight বিশ্লেষকরা নির্ধারণ করেছিলেন যে Bitcoin-এর দরের বৃদ্ধি হবার সাথে সাথে লেনদেনের সংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে যার কারণে এর মূল্য এপ্রিল, 2018-এর অবস্থানে চলে এসেছে।
    তবে, এই ইতিবাচক মনোভাবের অর্থ এই নয় যে এই প্রবণতার এক আমূল পরিবর্তন হয়েছে এবং ক্রিপ্টোবাজারের এক স্থিতিশীল বৃদ্ধি শুরু হয়েছে। হ্যাঁ, নিঃসন্দেহে গত শুক্রবার থেকে লেনদেনের আয়তন প্রথমে প্রায় 10% বৃদ্ধি পেয়েছিল। কিন্তু BTC-এর 4,000$-এর স্তরে পৌঁছানোর পরে, এই বৃদ্ধির জন্য অনেক লেনদেনকারী লাভ তুলে নেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, যার ফলে মূলধন বিনিয়োগ প্রায় 2% হ্রাস পেয়েছিল। তাই BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ির 3,700$-এর দিগন্তে সুসংহত থাকার দৃশ্যপটকে এই বিবেচনা থেকে বাদ দেওয়া যাবে না।
    এটি অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে Bitcoin শেয়ার “অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ” হিসাবে ক্রিপ্টোবাজারে 58%-এর বেশী পরিমাণ দখল করে রয়েছে। অন্যান্য শীর্ষস্তানীয় বিকল্পমুদ্রার কথা বলতে গেলে, মে 2018 সাল থেকে, তাদের "কেকের টুকরো" র পরিমাণ ক্রমাগত হ্রাস পাচ্ছে। এইভাবে, বর্তমানে ক্রিপ্টোবাজারে Ripple     (XRP/USD)-এর শেয়ারের অংশ হল 11.52%, Ethereum (ETH/USD)-এর  9%, এবং Litecoin (LTC/USD)-এর মাত্র 1.51%। কিন্তু এই "কম পরিমাণ"-এর জন্য তারা আরো বেশী সক্রিয়তা দেখাতে সমর্থ হচ্ছে। এইভাবে, Ripple-এর সাপ্তাহিক ওঠানামার ব্যাপকতা হল 25%, এবং Ethereum-এর 22%, যা অবশ্যই ট্রেডারদের কাছে খুব আকর্ষণীয়।   

 

-আসন্ন সপ্তাহের পূর্বাভাসের বিষয়ে, অনেক বিশ্লেষকদের মতামতের সাথে সাথে প্রাযুক্তিক ও রৈখিক বিশ্লেষণের বিভিন্ন পদ্ধতির ভিত্তিতে কৃত পূর্বাভাসগুলিকে সংক্ষিপ্ত করে আমরা নিম্মলিখিত বক্তব্য রাখছিঃ

  • EUR/USD মুদ্রাজুড়ি। আসন্ন সপ্তাহ গুরুত্বপূর্ণ বৃহৎ অর্থনৈতিক ডেটা ইস্যু করা এবং বিশ্ব অর্থনীতির রাজনীতিবিদ এবং প্রধান প্রধান ব্যক্তিত্বদের গুরুত্বপূ্র্ণ বক্তব্য উভয়েই ঠাসা থাকবে। তাই, শেয়ারবাজার FED-এর প্রধান জেরোম পাওয়েলের ইউএস কংগ্রেসে মঙ্গলবার, 26শে ফেব্রুয়ারীতে বক্তব্য শোনার জন্য অপেক্ষা করবে। এবং তিন যদি এটি স্পষ্ট করেন যে ফেড সুদের হার বৃদ্ধি করার জন্য কোন তাড়াহুড়ি করবে না, তাহলে তা ইউএস মুদ্রার উপর অনেক চাপ ফেলবে।
    তবে, মাত্র 30% বিশেষজ্ঞরা আশা রাখেন যে এরকম “সমঝোতা” মনোভাব এই মুদ্রাজুড়ির বৃদ্ধি 1.1400-এর অঞ্চলে মাঝারি-মেয়াদের মূল বিন্দুর দিকে ঠেলে দেবে এবং 1.1500-এর চ্যানেলের আরো উর্ধ্বতর সীমানায় নিয়ে যাবে। বেশীরভাগ বিশেষজ্ঞরা (70%)  বিপরীত অবস্থান নিয়েছেন এই বিশ্বাসে যে ইউরোপীয়ান অর্থনীতির দুর্বল হওয়া এবং ব্রেক্সিট-এর বিশৃঙ্খলা ডলারের পক্ষে ভারসাম্যকে ঠেলে দেবে, এবং এই মুদ্রাজুড়ি 1.1215-1.1240-এর অঞ্চলে সাম্প্রতিক মাসগুলির নীচের দরে ফিরে আসবে;
  • GBP/USD  মুদ্রাজুড়ি। মূল ঘটনাগুলি যা আসন্ন সপ্তাহের প্রবণতা নির্ধারণ করবে তা হল ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-র সোমবার, 26শে ফেব্রুয়ারীর বক্তব্য এবং মঙ্গলবারে ইইউ-র সাথে চুক্তি পর্যালোচনা করার জন্য ওই দেশের পার্লামেন্টের ভোট। যদি মিসেস মে-র প্রস্তাবগুলি আরেকবার প্রত্যাখ্যাত হয়, ওনার একটি বিকল্প থাকবেঃ হয় কোন চুক্তি ছাড়াই প্রস্থান, অথবা ব্রেক্সিট-এর স্থগিতকরণ। শেয়ারবাজারের মনোভাব বিচার করে, বেশীরভাগ বিনিয়োগকারীরাই দ্বিতীয় বিকল্পের প্রতি মনোভাব পোষণ করছেন (অথবা সেরকমই বিশ্বাস করতে চান)। যাইহোক না কেন, 40% বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে বর্তমানের দরে পাউণ্ডের মূল্য 1.3000-এর কাছাকাছিই থাকতে পারবে এবং এমনকি 35% বিশেষজ্ঞরা 1.3200-এর বৃদ্ধির পূর্বাভাস করেছেন। মাত্র 25% বিশ্লেষকরা এই মুদ্রাজুড়ির 1.2770-1.2830-এর অঞ্চলে পতনের পক্ষে মত দিয়েছেন।
    পাউণ্ডের জন্য অতিরিক্ত সমর্থন  "কালো সোনা"-র মূল্য বৃদ্ধির কারণে হতে পারে, যেহেতু পাউণ্ড সরাসরি তেলের মূল্যের সাথে সম্পর্কযুক্ত রয়েছে।       
  • USD/JPY মুদ্রাজুড়ি। আরো পরিবর্তনশীল ঘটনাবলীর অনুমানের কারণে জাপানী মুদ্রা নিশ্চল হয়ে রয়েছে। আমেরিকা, জার্মানীর আরো খারাপ হওয়া বৃহৎ অর্থনৈতিক পরিসংখ্যান, যা বড় জোর একটি মন্দাভাব এড়াতে পেরেছে, ট্রাম্পের ইউরোপ এবং চীনের সাথে বাণিজ্যিক যুদ্ধ, চীনের বিগত তিন দশকের মধ্যে ধীরতম জিডিপি বৃদ্ধি – এইসব কারণগুলি বিনিয়োগকারীদের বিশ্বজনীন অর্থনীতির সম্ভাবনার বিষয়ে হতাশগ্রস্ত করে রেখেছে। মনে হচ্ছে যে এরকম পরিস্থিতিতে এক সুরক্ষিত মুদ্রা হিসাবে ইয়েনের প্রতি আগ্রহ বৃদ্ধি পাওয়া উচিৎ হবে। কিন্তু পরিবর্তে, ঝুঁকিপূর্ণ, কিন্তু আরো লাভজনক শেয়ারের প্রতি তাদের ক্ষিধে আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। এইভাবে, EPFR ডেটা অনুযায়ী, এই বছরের শুরু থেকে ETF এক্সচেঞ্জ তহবিলের মাধ্যমে উন্নয়নশীল অর্থনীতিসম্পন্ন দেশগুলিতে নেট মূলধনের প্রবাহের পরিমাণ 16 বিলিয়ন ডলারে পৌঁছিয়েছে।
    এরকম পরিস্থিতিতে, বেশীরভাগ সূচক এবং D1-তে রৈখিক বিশ্লেষণ সাথের পুরোপুরি সহমত হয়ে, 70% বিশেষজ্ঞরা ইয়েনের আরো পতনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন এবং এই মুদ্রাজুড়ির 111.50-এর উচ্চতায় বৃদ্ধির পক্ষে এবং তারপরে আরো 100 পয়েন্ট ওঠার পক্ষে ভোট দিয়েছেন। 30% বিশেষজ্ঞরা এক বিকল্প পূর্বাভাসের পক্ষে মত দিয়েছেন, যারা বিশ্বাস করেন যে এই মুদ্রাজুড়ির 109.60-110.00-এর অঞ্চলে নেমে যাওয়া উচিৎ হবে; 

  • ক্রিপ্টোমুদ্রা। জেপিমরগ্যান দ্বারা JPM Coin উপস্থাপনার পরে, ক্রিপ্টো গোষ্ঠী ফেসবুক,অ্যামাজন এবং অন্যান্য বৃহৎ বিশ্বজনীন কর্পোরেশন থেকে অনুরূপ পদক্ষেপ আশা করছে। কিন্তু এইগুলি সব এক অপষ্ট ভবিষ্যতের ছবি। ইতিমধ্যে, ক্রিপ্টোবাজারে শৃঙ্খলা আনার জন্য SEC এবং CFTC-এর মত নিয়ন্ত্রকদের অপ্রিয় ব্যবস্থা সহ অনেকগুলি পদক্ষেপ নিতে হবে।
    আসন্ন সপ্তাহের প্রবণতার বিষয়ে, বিশেষজ্ঞদের মতামত নিম্নরূপঃ 40% বিশেষজ্ঞদের মত হল Bitcoin-এর বৃদ্ধি 4,200-4,400$-এর অঞ্চলে থাকা বজায় থাকবে, 4,485$-এর উচ্চতায় নভেম্বর 2018-এর সর্বোচ্চ ঝাঁকুনিও এর মধ্যে বাদ দেওয়া যায় না। 35% বিশেষজ্ঞরা এই ক্রিপ্টোজুড়ির চ্যানেলে পার্শ্ববর্তী গমনাগমনের পূর্বাভাস দিচ্ছে, আর বাকি 25% বিশেষজ্ঞরা আশা করছেন যে BTC/USD ক্রিপ্টোজুড়ি 3,500-3,800$-এর অঞ্চলে ফিরে আসবে।

 

-রোমান বাটকো, NordFX

 

-বিজ্ঞপ্তিঃ এই লেখনীগুলিকে আর্থিক বাজারে লেনদেন করার জন্য বিনিয়োগ বা নির্দেশিকার সুপারিশ হিসাবে গণ্য করা উচিত হবে নাঃ এগুলি শুধুমাত্র তথ্যমূলক উদ্দেশ্যে করা হয়েছে। আর্থিক বাজারে ট্রেডিং ঝুঁকিপূ্র্ণ এবং এতে গচ্ছিত অর্থের সম্পূর্ণ ক্ষতি হতে পারে।  


« বাজার বিশ্লেষণ ও সংবাদ
প্রশিক্ষণ
গ্রহণ করুন
মার্কেটে নতুন? ব্যবহার করুন “শুরু করা যাক” বিভাগটি।
প্রশিক্ষণ শুরু করুন
আমাদের অনুসরণ করুন (সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে)